এতোকিছুর পরও বেঁচে গেলেন তারা ২ জন

খেলা বার্তা

বিশ্বকাপের পরপরই কোচিং স্টাফ ছাঁটাই করা শুরু করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। প্রধান কোচ স্টিভ রোডসের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করা হয়। চুক্তি নবায়ন করা হয়নি বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশের সঙ্গে। দায়িত্ব ছেড়ে আমেরিকায় পাড়ি জমিয়েছেন স্পিন বোলিং কোচ সুনীল যোশি। ফিজিও থিহান চন্দ্রমোহনের সঙ্গেও চুক্তি বাড়ায়নি বিসিবি। তবে ছাটাইয়ের ভিড়ে বেঁচে গেছেন ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক এবং ফিটনেস ট্রেইনার মারিও বিল্লাভারায়ন।বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পারফর্মেন্স সন্তোষজনক না হওয়ায় কোচিং স্টাফে পরিবর্তন এনেছে বিসিবি। তবে এর মাঝেও ফিল্ডিং কোচ এবং ট্রেইনারের ওপর ভরসা রাখছে দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আসন্ন সিরিজে কুক ও বিল্লাভারায়ন দুইজনই থাকবেন দলের সঙ্গে, নিশ্চিত করেছেন বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান।‘আমরা ফিল্ডিং কোচের (রায়ান কুক) সঙ্গে যোগাযোগ করছি। সে আসবে। শ্রীলঙ্কা সিরিজের আগেই যোগ দেবে। ফিজিও চলে আসবে। প্রথমদিন তো মারিও আসবে। সবার ফিটনেস দেখবে। এরপর ১৮ তারিখ থেকে ব্যাটিং-বোলিং যা দরকার শুরু হয়ে যাবে।’ মিরপুরে সাংবাদিকদের বলেছেন আকরাম খান।২০১৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জ্যামাইকা টেস্টে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে যোগ দেন রায়ান কুক। ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত বিসিবির সঙ্গে চুক্তি হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকান এই কোচের।কুকের পারফর্মেন্সে সন্তুষ্ট হয়েই হয়তো তাঁর সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করেছে বিসিবি। ২০১৪ সাল থেকে জাতীয় দলের সঙ্গে থাকা শ্রীলঙ্কান ট্রেইনার বিল্লাভারায়নের কাজেও খুশি বিসিবি।