শখ পূরণ করতে গিয়ে নিজের আইডি ঝুঁকিতে ফেলছেন না তো

লাইফস্টাইল বার্তা

জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গেলেই দেখা যাচ্ছে যেন বুড়ো মানুষের মেলা হচ্ছে। দু’দিন আগেও যেখানে নিজেকে তরুণ দেখাতে বিউটি মুডে ছবি তুলে, আপ করার জন্য সবাই মুখিয়ে থাকতেন। সেখানে নতুন প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে ২৫ বছরের টগবগে তরুণ, বয়স ৭০ হলে চেহারা কেমন হবে, তা জানাতে।সাধারণ মানুষ থেকে সেলিব্রেটি কেউই বাদ যাননি এটি ব্যবহারে। ফেসঅ্যাপে চেহারা বদল করে বুড়ো হতে এই নতুন ফিচারটি এরই মধ্যে বিশ্বজুড়ে ব্যবহার করেছেন প্রায় ১৫ কোটি মানুষ। আর এই ফিচার ব্যবহার করে নিজের আইডিটিই ফেলছেন ঝুঁকির মুখে। কারণ ব্যবহারকারীর নাম, ছবিসহ অন্যান্য তথ্য নিজেদের সার্ভারে জমা করেছে ফেসঅ্যাপ।

এদিকে রাশিয়ান প্রতিষ্ঠান ওয়্যারলেস ল্যাবের তৈরি ফেসঅ্যাপটি নিয়ে শক্তিশালী গণমাধ্যম ফোর্বসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সবাই মনে করছে অ্যাপটি এমনিতেই ব্যবহার করা যাচ্ছে। কিন্তু এটি ব্যবহার করতে গিয়ে যে তার নাম, ছবিসহ বিভিন্ন জরুরি তথ্য দিতে হচ্ছে, বিষয়টি কেউ আমলে নেয়নি।অ্যাপটি ব্যবহারের সময় শর্তে বলা হয়, ফেসঅ্যাপ চাইলে যেকোনো কাজে গ্রাহকের তথ্য ব্যবহার করতে পারবে। কিন্তু নিজেকে বুড়ো দেখানোর উন্মাদনায় বিশ্ববাসী ভুলেই গেছে সাইবার নিরাপত্তার কথা।

ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, টুইটারসহ অন্যান্য মাধ্যমে ফেসঅ্যাপ দিয়ে বুড়ো দেখানোর অ্যাপসটি গুগল প্লে স্টোর থেকে ১০ কোটির বেশিবার ডাউনলোড হয়েছে। এছাড়াও ১২১ দেশে অ্যাপলের আইওএস অ্যাপ স্টোরের শীর্ষ ডাউনলোড হওয়ার তালিকায়ও রয়েছে এটি।যদিও কাজ শেষে ফেসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর তথ্য ৪৮ ঘণ্টা সময়ের মধ্যে মুছে ফেলবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে। তবুও ঝুঁকি কিন্তু থেকেই যায়।শুধু ফেসঅ্যাপ নয়, সামাজিক যোগাযোগের প্লাটফর্মগুলোতে যেকোনো ধরনের অ্যাপ ব্যবহারের আগে অবশ্যই শর্তগুলো পড়ে-বুঝে নিন। নিজের সব তথ্য নিরাপদ রেখে সবার সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করুন।