প্রতি ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে হাসপাতালে

জেলা বার্তা

রাজধানীতে গেলো দশ দিনে প্রতি ঘণ্টায় গড়ে প্রায় নয়জন করে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তবে এখনো নগর কর্তৃপক্ষের টনক নড়েনি বলেই অভিযোগ রাজধানীবাসীর। যদিও স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জোর দিয়েই বলছে, নিয়ন্ত্রণে আছে ডেঙ্গু পরিস্থিতি। এডিস ছড়িয়ে পড়েছে রাজধানীর প্রতিটি কোণায়। তাইতো প্রতিনিয়তই রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে বেড়েই চলছে ডেঙ্গু রোগী।স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসেবে ২০ জুলাই পর্যন্ত ডেঙ্গু নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ছয় হাজার ৪৫ জন। এর মধ্যে এক হাজার ৪’শ ৭৪ জন এখন বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তবে আতঙ্কের বিষয় হলো, সবশেষ দশ দিনে এই হিসাব দুই হাজার ২’শ ৬৭ জন। অর্থাৎ প্রতিদিন গড়ে ২২৬ জনের বেশি। আর প্রতি ঘণ্টায় নয়জন।

সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা.মোস্তফা কামাল রউফ বলেন, এই মুহূর্তে আমাদের হাসপাতালে ৮৫ জন রোগী ভর্তি আছে। এছাড়া প্রতিদিন ৪০-৫০ জন রোগী আমরা বহির্বিভাগে চিকিৎসা দিচ্ছি। এত কিছুর পরেও সিটি করপোরেশনের ভূমিকা নিয়ে ক্ষুব্ধ নগরবাসী।একজন বলেন, ডেঙ্গু তো প্রতিবছরই হয়। কিন্ত এবার ডেঙ্গুর প্রকোপ একটু বেশি। তবে যেভাবে প্রতিরোধ করা দরকার সেইভাবে প্রতিরোধ করা হচ্ছে না।তবে চলতি মাসেই রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে রোগী ভর্তির সংখ্যা যখন চার হাজার তখনও নগর কর্তৃপক্ষের দাবি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমরা আমাদের সরকারি বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে যারা চিকিৎসা দিচ্ছেন, তাদেরকে প্রশিক্ষণ দিয়েছে, সচেতনটা শিখিয়েছে। এবং তাদের জন্য গাইড লাইন তৈরি করেছি, কারণ তারা যেনো রোগীদের সঠিকভাবে চিকিৎসা দেয়।স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসেবে মৃতের সংখ্যা পাঁচ জন।