জনসভায় মোদীকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন মমতা

রাজনীতি বার্তা

লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে ব্যাপক ভরাডুবির পর কলকাতায় জনসভায় ব্যাপক শোডাউন করলো তৃণমূল। শহীদ দিবসের জনসভায় মোদী সরকারকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির বিরুদ্ধে ব্যাপক কারচুপির অভিযোগ তুলে, আগামী বিধানসভা নির্বাচনে ইভিএমের পরিবর্তে ব্যালট ফেরাতে আবারও জোর দাবি জানান। সেইসঙ্গে, ২০২১ সালের ওই নির্বাচনে বিজেপির ভরাডুবি হবে বলেও মন্তব্য করেন মমতা। লোকসভা নির্বাচনের পর প্রথমবারের মতো তৃণমূল আয়োজিত জনসভা উপলক্ষে রোববার সকাল থেকেই সভাস্থল কলকাতার ধর্মতলায় জড়ো হতে শুরু করেন সমর্থকরা। দুপুর গড়াতেই কানায় কানায় ভরে ওঠে সভাস্থল। দুপুর গড়াতেই ‘শহীদ দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত সভামঞ্চে এসে হাজির হন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পরে, কয়েক লাখ সমর্থকের উপস্থিতিতে ভাষণ দেন তিনি।

এসময়, মুখ্যমন্ত্রী অভিযোগ করে বলেন, লোকসভা নির্বাচনে ইভিএমের মাধ্যমে ব্যাপক কারচুপি করেছে বিজেপি। আর এ কারণেই বিধানসভা নির্বাচন ব্যালট পেপারে আয়োজনের পথ সুগম করতে আসন্ন পঞ্চায়েত, পৌরসভা ও করপোরেশন নির্বাচনের ভোট ব্যালটে নেয়ার দাবি জানান মমতা।এসময় মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, আগামী বিধানসভা নির্বাচনে সব নিকেশ উল্টে ভরাডুবি হবে বিজেপির। ব্যালটের মাধ্যমে সুষ্ঠু ভোট আয়োজনের মধ্য দিয়ে পশ্চিমবঙ্গ দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী।

১৯৯৩ সালের ২১শে জুলাই তৎকালীন বামফ্রন্ট সরকারের বিরুদ্ধে সেসময়ের যুব কংগ্রেস নেত্রী মমতা ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে প্রতিবাদ মিছিল করেন। এতে, পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারান যুব-কংগ্রেসের ১৩ কর্মী। এরপর থেকেই ২১শে জুলাই ‘শহীদ দিবস’ হিসেবে পালন করে আসছে তৃণমূল। আর লোকসভা নির্বাচনের পর প্রথমবারের মতো সেই শহীদ সভা থেকেই বিজেপির প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।