এক ঘরের বিদ্যুৎ বিল ১২৮ কোটি টাকা !

আন্তর্জাতিক

ভারতের উত্তরপ্রদেশের হাপুরের হাপুরের চামরি গ্রামের শামিম। তার ঘরে একটি মাত্র ফ্যান ও কয়েকটি বৈদ্যুতিক লাইট। আগে প্রতি মাসে তার ঘরের বিদ্যুৎ বিল আসত ৭০০ থেকে ৮০০ রুপি। কিন্তু জুন মাসের বিদ্যুৎ বিলের কাগজ পেয়ে ভিমড়ি খাওয়ার অবস্থা তার। রাজ্য বিদ্যুৎ দফতর এ মাসে তার বাড়ির বিদ্যুৎ বিল পাঠিয়েছে ১২৮ কোটি রুপিরও বেশি।ষাটোর্ধ্ব শামীম বিপুল অংকের এ বিদ্যুৎ বিলের কাগজ নিয়ে সংশোধন করতে গিয়ে হয়েছেন আরও হয়রানির শিকার। বিল ঠিক করা তো দূরের কথা উল্টো তার বাড়ির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছেন বিদ্যুৎ দফতরের কর্মীরা। খবর জিনিউজের।

শামিমকে বিল দেওয়া হয়েছে ১২৮ কোটি ৪৫ লাখ ৯৫ হাজার ৪৪৪ রুপির। তিনি জানান, এখন কেউ আমার কথা শুনছেন না। এত টাকা দেব কী করে! এ নিয়ে অভিযোগ করতে গেলে বিদ্যুৎ অফিসের লোক এসে আমার ঘরের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে। বলা হয়েছে, ওই টাকা পরিশোধ না করা পর্যন্ত আর বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হবে না।স্ত্রীকে নিয়ে চামরি গ্রামের ওই ঘরে থাকেন শামীম। তাতে ওই বিপুল রুপির বিদ্যুৎ বিল আসে কিভাবে তিনি ভেবে পান না। শামীম বলেন, মনে হচ্ছে গোটা হাপুরের বিল আমার মাথায় চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমাদের ঘরে একটি মাত্র ফ্যান চলে। আর কয়েকটি লাইট। তাতে এত বিল আসে কী করে!