চাষের জমিতে ৬০ লাখ টাকার ‘হীরার খণ্ড’কুড়িয়ে পেলেন কৃষক

আন্তর্জাতিক

ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের কুরনুল জেলার গোলাভানেপল্লী গ্রামে প্রতিদিনের মতোই জমিতে চাষ করছিলেন এক কৃষক। চাষের সময় হঠাত একটি স্বচ্ছ নুড়ি দেখে সন্দেহ হয় তার। নুড়ি পাথরটি তুলে নিয়ে তিনি সোজা রওনা দেন গয়নার দোকানে। পাথরটি পরীক্ষা করেই চক্ষু চড়কগাছ দোকানের মালিকের। স্বচ্ছ পাথরটি আসলে একটি হিরা,যার বাজার মূল্য কমপক্ষে ৬০ লক্ষ টাকা!চাষের জমিতে পাওয়া সেই হিরা ইতিমধ্যেই কিনে নিয়েছেন এক স্থানীয় হিরা ব্যবসায়ী। আল্লাহ বক্স নামের হিরা ব্যবসায়ী ১৩.৫ লক্ষ টাকা ও পাঁচ তোলা সোনার বিনিময়ে কিনেছেন এই হিরা। হিরা কেটে পালিশ করার পরে তার দাম প্রায় ৬০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। অভিজ্ঞ কারিগর দিয়ে পালিশ করলে তবেই পাওয়া যাবে হিরাটির আসল মূল্য। তবে, হিরাটির আকার, রঙ বা অন্যান্য তথ্য এখনও খোলসা করেননি ওই হিরা ব্যবসায়ী।

এই পুরো ঘটনা এখনো অবিশ্বাস্য ঠেকছে সেই হিরা পাওয়া চাষির। তবে, অন্ধ্রপ্রদেশের এই অংশে হিরা খুঁজে পাওয়ার ঘটনা নতুন কিছু নয়। এর আগেও কুরনুল জেলা ও তার আশেপাশের চাষের ক্ষেত, নদীর পার থেকে হিরা খুঁজে পেয়েছেন অনেকেই।চলতি বছরের ১২ই জুন জন্নাগিরি গ্রামে ভেড়া চড়াতে বেরিয়ে হিরা খুঁজে পান এক ভেড়া-পালক। প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা বাজার দরের সেই হিরাটি তিনি বিক্রি করেন ২০ লক্ষ টাকায়। প্রতি বছর বর্ষার সময়ে অনেকে তুঙ্গভদ্রা ও হুন্ডরী নদীর আশেপাশে তাঁবু করে থাকতে শুরু করেন।লক্ষ্য একটাই, বর্ষা্র পানিতে ধুয়ে আসা বালি-কাদার মধ্যে হিরার খোঁজ চালানো। এতে সফলও হন কেউ কেউ। কিন্তু এত পরিশ্রম না করেই হিরা এসে নিজ থেকেই ধরা দিয়েছে সেই চাষির কাছে।