বন্ধুর স্ত্রীকে বিয়ে করতে…

আন্তর্জাতিক

দিল্লিতে বন্ধুর স্ত্রী পুজাকে (ছদ্মনাম) বিয়ে করার জন্য বন্ধু দলবীরকে (৩০) হত্যা করেছে গুলকেশ। এ অভিযোগে গুলকেশকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গুলকেশ তার বন্ধু দলবীরের স্ত্রীকে বিয়ে করতে মরিয়া হয়ে উঠেছিল। এরই এক পর্যায়ে ইট দিয়ে দলবীরের মাথায় প্রচ- জোরে আঘাত করে সে। এতে অচেতন হয়ে পড়েন দলবীর। তারপর তার অচেতন দেহ একটি রেললাইনের ওপর রেখে দেয়, যাতে তা ট্রেনের আঘাতে ক্ষতবিক্ষত হয়ে যায়। এ খবর দিয়েছে অনলাইন এনডিটিভি।

ঘটনাটি ঘটে ২৪-২৫ জানুয়ারি রাতে।

ওই রাতে বন্ধু দলবীরকে ডেকে নিয়ে জাখিরা এলাকার কাছে রেললাইনে নিয়ে যায় গুলকেশ। সেখানেই ঘটিয়ে বসে নৃশংসতা। ইট দিয়ে বন্ধুর মাথায় আঘাত করে তাকে অচেতন করে ফেলে। তারপর তা ফেলে রাখে প্রেমনগর পাঠক রমা রোডের কাছে রেললাইনের ওপর। এ ঘটনায় প্রাথমিক তদন্ত হয়। কিন্তু গুলকেশ প্রথমে পুলিশকে পুরোপুরি মিথ্যে তথ্য দেয়। কিন্তু তদন্তের সময় পুলিশ তার মোবাইল ফোন চেক করে। তাতে তার ফোনকল রেকর্ডের ওপর ভিত্তি করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এ সময় গুলকেশ স্বীকার করে, নিহত দলবীরের স্ত্রী পুজার সঙ্গে তার অন্তরঙ্গ সম্পর্ক ছিল। সে পুজাকে বিয়ে করতে চেয়েছিল।

পুলিশ বলেছে, নিহত পুজা তাকে পছন্দ করলেও বিয়ে করতে চায় নি। এরই এক পর্যায়ে পুজাকে বিয়ে করার জন্য সে দলবীরকে হত্যার পরিকল্পনা করে। সে মনে করেছিল, দলবীরকে দুনিয়া থেকে সরিয়ে দিতে পারলে পুজা একা হয়ে যাবেন। তখন সে তাকে বিয়ে করতে পারবে। এ ঘটনায় পুজা বা অন্য কারো কোনো ভূমিকা আছে কিনা পুলিশ এখন তা তদন্ত করে দেখছে।