ফেসবুকে বাংলাদেশ নিয়ে বিভ্রান্তিকর পোস্ট, ক্ষমা চাইল অ্যামনেস্টি

আন্তর্জাতিক

যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার ধ্বংসযজ্ঞের ছবি দিয়ে বাংলাদেশের নাম ব্যবহার করেছিল আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

তবে এমন ভুলের জন্য বাংলাদেশের জনগণের ক্ষমাও চেয়েছে সংস্থাটি।

গতকাল মঙ্গলবার নিজেদের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে নতুন এক পোস্ট দিয়ে ওই ভুলের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করে সংস্থাটি।

ফেসবুকে দেয়া নতুন পোস্টে বলা হয়, ‘সংঘাত ও যুদ্ধময় দেশ, যেখানে মানুষ আক্রমণ, সংঘাত ও মৃত্যুর মুখোমুখি হচ্ছে ফেসবুক বিজ্ঞাপনে বাংলাদেশকে অন্তর্ভুক্ত করায় ক্ষমা চাচ্ছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। আমরা এই ভুলের জন্য বাংলাদেশের জনগণের এবং যারা এর মাধ্যমে মর্মাহত হয়েছেন, তাদের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাচ্ছি।’

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার ফেসবুকে সিরিয়ার একটি যুদ্ধবিধ্বস্ত এলাকার ছবি আপলোড করে সেখানে শুধু বাংলাদেশের নাম উল্লেখ করে অ্যামনেস্টি। সংস্থাটি সেখানে যুদ্ধে আক্রান্ত দেশে মানুষের মৃত্যু মুখে পতিত হওয়ার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানায়।

ওই পোস্টে সংস্থাটি লেখে, ‘বাংলাদেশ এবং পৃথিবীর অন্যান্য জায়গায় নিরপরাধ মানুষ আক্রমণের শিকার, সংঘাত ও মৃত্যুর মুখোমুখি হচ্ছে- কেবল মাত্র ভুল সময়ে ভুল জায়গায় থাকার কারণে। যুদ্ধ ও সংঘাতের সময় ভয়ংকর নির্যাতনকে তুলে ধরতে আমরা সংগ্রাম করছি। এ ধরনের গল্প শোনানোর জন্য হাজার হাজার মানুষের সঙ্গে আন্দোলনে যোগ দিন।’

অবশ্য শুক্রবার ওই পোস্ট দেয়ার কিছুক্ষণ পর থেকে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের ফেসবুক পেজে বাংলাদেশ থেকে সেটি দেখা যায়নি।