ব্যাটিং তাণ্ডব চালিয়ে সাজঘরে গেইল-রিয়াদ

খেলা বার্তা

জিতলে সোজা ফাইনালে। আর হারলে বিদায়। এমন সমীকরণের ম্যাচে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে রীতিমতো তাণ্ডব শুরু করেন চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানব ক্রিস গেইল। একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ১৮ বলে ফিফটি তুলে নেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের এ তারকা ব্যাটসম্যান।

বুধবার সন্ধ্যায় মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ৩ ওভারে ২২ রানে ফেরেন ওপেনার জিয়াউর রহমানের উইকেট হারায় চট্টগ্রাম।

ব্যাটিং অর্ডারে প্রমোশন নিয়ে উদ্বোধনীতে খেলতে নামেন জিয়াউর রহমান। ক্রিস গেইলের সঙ্গে ওপেন করতে নেমে সুবিধা করতে পারেননি জাতীয় দলে ‘সাবেক’ হয়ে যাওয়া দেশের এ তারকা অলরাউন্ডার। পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ ইরফানের করা বলটি জিয়ার ব্যাটে লেগে স্ট্যাম্পে আঘাত হানে। ১২ বলে ৬ রানে ফেরেন জিয়া।

তিন নম্বর পজিশনে ব্যাটিংয়ে নেমে গেইলের সঙ্গে ২৩ রানের জুটি গড়ে সাজঘরে ফেরেন ইমরুল কায়েস। জিয়া-ইমরুল ফিরলেও ব্যাটিং তাণ্ডব অব্যাহত রাখেন গেইল। মাত্র ১৮ বলে ৫টি চার ও ৪টি ছক্কায় বিপিএল চলতি আসরের চতুর্থ ম্যাচে প্রথম ফিফটি তুলে নেন চট্টগ্রামের এ ক্যারিবীয় ওপেনার।

তবে ফিফটির পর নিজের ইনিংসটা লম্বা করতে পারেননি গেইল। আফিফ হোসেনের করা ওভারের প্রথম বলে ছক্কা হাঁকান গেইল। ঠিক পরের বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে বিভ্রান্ত হন। তার স্ট্যাম্প ভেঙে যায়। ২৪ বলে ৫টি ছক্কা আর ৬টি চারের সাহায্যে ৬০ রান করে ফেনের গেইল।

দলীয় ৯৭ রানে তৃতীয় ব্যাটসম্যনা হিসেবে গেইল আউট হওয়ার পর দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিতে পারেননি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।সাজঘরে ফেরার আগে মাত্র ১৭ বলে তিন চার ও ৩ ছক্কায় ৩৩ রান করে ফেরেন রিয়াদ।

আজকের ম্যাচে যারা জিতবে তারা আগামী ১৭ জানুয়ারি মিরপুরে খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে বিপিএল সপ্তম আসরের ফাইনালে খেলবে।