‘জাকির নায়েকের বক্তব্য কেন প্রত্যাখ্যান করছেন না মোদি-অমিত?’

আন্তর্জাতিক

কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন বাতিলে সমর্থন দিলে ভারতে ফেরত আসার সুযোগ দিতে ধর্মপ্রচারকারী জাকির নায়েককে যে প্রস্তাব দেয়া হয়েছে, তার ব্যাখ্যা দাবি করেছেন কংগ্রেসের জ্যেষ্ঠ নেতা দিগ্ববিজয় সিং।

প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, মোদি-অমিত শাহ কেন জাকির নায়েকের দাবি প্রত্যাখ্যান করতে পারছেন না।—খবর ডেকান হেরাল্ডের

অর্থপাচার ও ঘৃণা প্রচারের অভিযোগে ৫৩ বছর বয়সী জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে ভারতে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা রয়েছে।

এরপর ২০১৬ সালে ভারত ছেড়ে তিনি মালয়েশিয়ায় আশ্রয় নিয়েছেন। সম্প্রতি জাকির নায়েক দাবি করেন, গত বছরের সেপ্টেম্বরে মোদি সরকারের এক প্রতিনিধি তার কাছে এসে তাকে এই প্রস্তাব দিয়েছে। কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন বাতিলে সরকারের সিদ্ধান্তে তিনি যদি সায় দেন, তবে তাকে ভারতে নিরাপদে ফিরতে দেয়া হবে।

বুধবার জাকির নায়েকের একটি ভিডিও পোস্ট করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আনুষ্ঠানিকভাবে জাকির নায়েকের বক্তব্য অস্বীকার করা উচিত, না হলে এটাই ধরে নেয়া হবে যে দেশবিরোধী জাকির নায়েকের কথাই সঠিক ছিল।

পরবর্তী সময়ে সাংবাদিকদের দ্বিগবিজয় সিং বলেন, এই ভিডিওর মাধ্যমে জাকির নায়েক একটি বিবৃতি পেশ করেছেন। গত বছরের সেপ্টেম্বরে মোদি ও অমিত শাহ তার কাছে একজন দূত পাঠিয়েছেন, যিনি তাকে বলেন— যদি জম্মু ও কাশ্মীর ইস্যুতে তিনি সরকারকে সমর্থন করেন, তবে তাকে ভারতে ফিরতে দেয়া হবে।

এই কংগ্রেস নেতার মতে, মোদি সরকার তাকে রাষ্ট্রবিরোধী বলে ঘোষণা দিয়েছে। কাজেই তিনি যখন এমন একটি বিবৃতি দিয়েছেন, মোদি-অমিতের উচিত তা প্রত্যাখ্যান করা। আমার প্রশ্ন হচ্ছে: তারা কেন এখনো জাকির নায়েকের বিবৃতিকে প্রত্যাখ্যান করছেন না।