বাংলাদেশ নিয়ে পাকিস্তানকে সতর্কবার্তা শোয়েবের

খেলা বার্তা

শ্রীলংকার মতো বাংলাদেশকে হালকাভাবে নিতে পাকিস্তানকে নিষেধ করলেন দেশটির সাবেক স্পিডস্টার শোয়েব আখতার। তিনি মনে করেন, আসন্ন সিরিজটি পাক ব্রিগেডের জন্য কঠিন হবে। তবে তার চাওয়া, হোমগ্রাউন্ডে টাইগারদের বিপক্ষে সিরিজ জিতুক স্বাগতিকরা।

চলতি মাসের শেষ দিকে পাকিস্তান সফরে যাবে বাংলাদেশ। তিন ভাগে সেখানে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলবেন টাইগাররা। সফরে তিনটি টি-টোয়েন্টি, একটি ওয়ানডে এবং দুটি টেস্ট খেলবেন তারা।

প্রথমে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে দেশে ফিরবে বাংলাদেশ। এর ১০ দিন পর সিরিজের প্রথম টেস্ট খেলতে পাকিস্তানের বিমান ধরবেন তামিম-মুশফিকরা। এর পর এপ্রিলে একমাত্র ওয়ানডে এবং সিরিজের বাকি টেস্ট খেলতে সন্ত্রাসকবলিত দেশটিতে যাবেন তারা।

মূলত টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশকে নিয়ে ভয় শোয়েবের। যদিও রেকর্ড-পরিসংখ্যান পাকিস্তানের পক্ষে কথা বলছে। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণে এক নম্বর দল পাকিস্তান। একবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছে তারা। আরেকবার রানার্সআপ হওয়ার নজির আছে।

অবশ্য ফর্ম ও পরিসংখ্যানের বিচারে নিজের দেশকেই ফেভারিট মানছেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস। তবু টাইগারদের হালকাভাবে নিতে চান না তিনি। ২০১৮ এশিয়া কাপে লাল-সবুজ জার্সিধারীদের কাছে হেরে ফাইনালে খেলার স্বপভঙ্গ হয় মেন ইন গ্রিনদের। আসন্ন সিরিজে ফের বাংলাদেশের কাছে হারলে পাকিস্তানের ক্রিকেট নিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠবে বলে মনে করেন শোয়েব।

গেল বুধবার নিজের জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেলে নিয়মিত আয়োজনে তিনি বলেন, টি-টোয়েন্টিতে অন্যতম সেরা দল পাকিস্তান। তবু বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ নিয়ে সতর্ক থাকতে হবে। অধিক চিন্তাভাবনা করতে হবে। কারণ এই দল শ্রীলংকা নয়। বাংলাদেশ সেরা মানের ক্রিকেট খেলে। তারা এখন টপ ক্লাস ক্রিকেট খেলছে। সিরিজটা পাকিস্তানের জন্য খুবই চ্যালেঞ্জিং হবে।

সর্বকালের দ্রুততম গতির বোলার বলেন, পাকিস্তানকে শুধু সিরিজটা জিতলেই চলবে না। বরং খুব ভালোভাবে জিততে হবে। বাংলাদেশের কাছে হেরে গেলে তাদের ক্রিকেট নিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠবে। তাই আমি চাই এ সিরিজ জিতুক বাবর-আমিররা।

তথ্যসূত্র: ডেইলি টাইমস, ইউটিউব।