আপনার পোস্টার আমি লাগিয়ে দেব: তাবিথকে আতিক

রাজনীতি বার্তা

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়ালের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ খণ্ডন করে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আতিকুল ইসলাম বলেন, আমার কোনো নেতাকর্মী-সমর্থক আপনাদের পোস্টার ছিঁড়েনি, ছিঁড়বেও না। তাবিথ আউয়ালের পোস্টার নিজে লাগিয়ে দেবেন বলেনও এ সময় জানান আতিক।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর মিরপুর আলুব্দী ঈদগাহ ময়দান এলাকায় গণসংযোগকালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়াল তার পোস্টার ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ করেছেন এমন প্রশ্নের জবাবে আতিক বলেন, আপনারাই দেখুন পুরো ঢাকায় তাবিথ আউয়ালের পোস্টার। আমি যদি বলতাম, আমাদের নেতারা যদি বলত পোস্টার ছিঁড়তে, তা হলে তাবিথ আউয়ালের একটি পোস্টারও থাকত না। আমাদের ছেঁড়া লাগবে না। আমি আপনাকে (তাবিথ আউয়াল) বলছি– আপনার পোস্টার দিন, আমি লাগিয়ে দেব। আপনার একটি পোস্টারও কেউ ছিঁড়বে না।

প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীকে মাঠে থাকার আহ্বান জানিয়ে সাবেক মেয়র আতিক বলেন, অভিযোগ না করে শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকেন, ৩০ জানুয়ারি দেখা যাবে, নৌকা বিজয়ী হবেই।

সরস্বতী পূজা, সম্ভব হলে নির্বাচন পিছিয়ে দেয়ার আহ্বান জানান আওয়ামী লীগের এই মেয়রপ্রার্থী। ‘আমি নির্বাচন কমিশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলছি– যদি সম্ভব হয় অবশ্যই নির্বাচন পেছানো হোক। আমি আমার দলের পক্ষ থেকে এবং আমার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে এ দাবি করছি’-যোগ করেন আতিক।

নির্বাচিত হলে আগামী ছয় মাসের মধ্যে ডিএনসিসির প্রতিটি এলাকা এলইডি বাতির আলোয় আলোকিত করা হবে বলেও প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

নির্বাচনী প্রচারে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক এসএম কামাল হোসেন, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এসএ মান্নান কচি, সাবেক সংরক্ষিত সংসদ সদস্য সাবিনা আক্তার তুহিন, নাজমা আক্তার, আমির হোসেন মোল্লা প্রমুখ।

আগামী ৩০ জানুয়ারি ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। দুই সিটির প্রতিটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হবে ইভিএমের মাধ্যমে। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলবে ভোটগ্রহণ। এবারই প্রথম ইভিএম পদ্ধতিতে সব কেন্দ্রে ভোট হবে।