সিটির ভোটেও সিইসির তেলেসমাতি কিনা, সংশয়ে রিজভী

রাজনীতি বার্তা

ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হওয়া নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

তিনি বলেছেন, চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপ-নির্বাচনের মত প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা ঢাকাতেও নিজের তেলেসমাতি অক্ষুণ্ন রাখবেন কিনা সেটি নিয়ে জনমনে সংশয় দেখা দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

চট্টগ্রামে উপ-নির্বাচনে প্রহসন হয়েছে দাবি করে রিজভী বলেন, চট্টগ্রামের মত ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি নির্বাচনেও ভোটের আগে বিএনপি নেতাকর্মী ও সমর্থকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হুমকি-ধমকি, হামলা আর ভোটের দিন ভোটকেন্দ্রে আসতে নিষেধ করা হচ্ছে। ধানের শীষের প্রার্থীর সমর্থক ও ভোটারদের প্রতিনিয়ত নিগৃহীত করা হচ্ছে।

ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) সুষ্ঠু ভোট হবে না দাবি করে তিনি বলেন, ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনও চট্টগ্রামের মত দখলের নীল নকশার প্রস্তুতি কিনা তা নিয়ে জনমনে সংশয় দেখা দিয়েছে। ঢাকাতেও সন্ত্রাসী কার্যক্রম শুরু হয়ে গেছে।

বিএনপির এই নেতা বলেন, নির্বাচনী প্রচারে গ্রেফতার অভিযান করবে না বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আদালতও এ বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছেন। অথচ এখন বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেফতার-অভিযান ও হামলা চলছে এবং হামলার মাধ্যমে একটা ভয়ভীতির পরিবেশ তারা সৃষ্টি করেছে। যাতে জনগণ ভোট থেকে সরে আসে।

বিএনপি নেতা আলী নেওয়াজকে গ্রেফতারের নিন্দা জানিয়ে রিজভী বলেন, বুধবার সন্ধ্যায় বিএনপির সহ-যুব বিষয়ক সম্পাদক মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজকে রাজধানীর লালবাগ কেল্লার মোড় থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তিনি বিএনপি প্রার্থীর পক্ষে জোরালোভাবে মাঠে কাজ করছিলেন।

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করে তিনি বলেন, অসুস্থ খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রেখে দিন দিন মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে।