গোপালগঞ্জে বাস উল্টে নিহত বেড়ে ৬

জেলা বার্তা

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে বেপরোয়া গতির কারণে বাস উল্টে গিয়ে প্রাণ গেল ৬ জনের। এতে আহত হয়েছে আরো ২৪ জন। সোমবার সাড়ে ১১টার দিকে কাশিয়ানী উপজেলার ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের ভাটিয়াপাড়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।আহতদের কাশিয়ানী, গোপালগঞ্জ হাসপাতাল ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন, নড়াইল জেলার নড়াগাতি থানার জলাডাঙ্গা গ্রামের লোকমান মোল্লা (৬০), একই থানার ডুমুরিয়া গ্রামের গফফার মোল্লা (৬৫), কিবরিয়া মোল্লা (৫০), চান মিয়া (৩০), আসলাম শেখ (৩৫) ও রাব্বী খাঁ (২২)।নিহতরা দুর্ঘটনায় কবলিত বাসের ছাদে ছিলেন। তারা ১৫/২০ জন শ্রম বিক্রি করতে গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলার টেংরাখোলা বাজারে যাচ্ছিলেন।কাশিয়ানী থানার ওসি আজিজুর রহমান জানান, গোপালগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা কাশিয়ানী উপজেলার ব্যাসপুরগামী একটি লোকাল বাস ভাটিয়াপাড়া মোড়ে মহাসড়কের ওপর উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলে ৩ বাসযাত্রী নিহত হন। আহত হন অন্তত ২৭ যাত্রী।পরে খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে কাশিয়ানী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়। সেখানে আরো একজন নিহত হন। মারাত্মক আহতদের গোপালগঞ্জ ২৫০-শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।পরে ফরিদপুর নেয়ার পথে রাব্বী ও হাসপাতালে আসলাম শেখ চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

কাশিয়ানী উপজেলা নির্বাহ কর্মকর্তা এ এস এম মাঈন উদ্দিন ও কাশিয়ানী থানার ওসি আজিজুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এসময় মহাসড়ক থেকে দুর্ঘটনা কবলিত বাসটি উদ্ধার করা হলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।ফরিদপুরের ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ওসি আতাউর রহমান জানান, দুর্ঘটনার পর নিহতদের মরদেহ নিয়ে আসা হয়। পরে পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মরদেহগুলো বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে।প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বাসের অতিরিক্ত গতির কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। গোপালগঞ্জের লোকাল বাসগুলো ফিটনেসবিহীন।