ঘুমন্ত স্ত্রীর গায়ে আগুন দিলো স্বামী

অপরাধ জেলা বার্তা

মাদারীপুরে সন্তানের জন্য দুধ কিনতে বলায় ঘুমন্ত অবস্থায় স্ত্রীর শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে নাসির ফকির নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে। সোমবার রাত ১০টার দিকে শিবচর উপজেলার বাঁশকান্দিতে এ ঘটনা ঘটে।আহত গৃহবধু খাদিজা আক্তার শিবচর উপজেলার বাঁশকান্দি এলাকার দেলোয়ার শেখের মেয়ে। এ ঘটনায় শিবচর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুুলিশ ও ভুক্তভোগীর পরিবার জানায়, শিবচরের বাঁশকান্দির দেলোয়ার শেখের মেয়ে খাদিজা আক্তারের (২২) সাথে দ্বিতীয়াখন্ড এলাকার সেকান ফকিরের ছেলে নাসির ফকিরের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের ঘরে একটি মেয়ে সন্তানের জন্ম নেয়। এই মেয়ের জন্য সোমবার রাতে নাসিরকে দুধ আনতে বলে খাদিজা। পরে দুধ না নিয়েই ঘরে ফেরে নাসির, এ সময় দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে খাদিজা রাতে ঘুমিয়ে পড়লে দিয়াশলাই দিয়ে তার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয় নাসির। খাদিজার চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুঁটে আসলে নাসির পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয়রা আগুন নিভিয়ে আহত অবস্থায় খাদিজাকে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এ ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে অভিযুক্ত স্বামী নাসির।শিবচর থানার ওসি (অপারেশন) মো. আনোয়ার হোসেন জানান, গৃহবধূর শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়ার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। অভিযুক্তকে ধরতে পুলিশ মাঠে কাজ শুরু করেছে।মাদারীপুরের শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. আব্দুল মোকাদ্দেস জানান, আহত ওই গৃহবধূকে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তার শরীরের পেট ও বুকে পুড়ে যাওয়ার ক্ষত চিহ্ন রয়েছে।