(ঢামেক) হাসপাতালের পাঁচশ চিকিৎসকের ছুটি বাতিল করা হয়েছে

বিবিধ

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ক্ষণে ক্ষণে বাড়ছে। মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসকরা রোগীদের ২৪ ঘণ্টা চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন। ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বাড়ার কারণে এ বিভাগের প্রায় পাঁচশ’ চিকিৎসকের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। এবার ঈদে সবাইকেই ডিউটি করতে হবে।বুধবার (৩১ জুলাই) দুপুরে এ কথা জানিয়েছেন ঢামেক হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও কলেজের প্রিন্সিপাল অধ্যাপক খান আবুল কালাম আজাদ।তিনি বাংলানিউজকে বলেন, এ বছরের জুলাই মাসেই ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা অনেক বেড়েছে।

তবে এটা আতঙ্কের কোনো বিষয় নয়। আমাদের চিকিৎসকরা ২৪ ঘণ্টা চিকিৎসা দিচ্ছেন। ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা যেহেতু বাড়ছে, সে কারণে মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসকদের ঈদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। এদের মধ্যে আনুমানিক পাঁচশ’ চিকিৎসক রয়েছেন।খান আবুল কালাম আজাদ বলেন, গত শনিবার (২৭ জুলাই) মেডিসিন বিভাগের একটি ওয়ার্ডের মাত্র দু’টি ইউনিটে ১২০ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছিল। এদের মধ্যে ১১৫ জনকে সুস্থ করে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। আরও পাঁচ জন আছেন, তাদেরও শিগগিরই ছাড়পত্র দেওয়া হবে। এরকম মেডিসিন বিভাগের বেশ কয়েকটি ওয়ার্ডের মধ্যে অনেক ইউনিট আছে, এখনো সেখানে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি।

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে সবাইকে চিঠির মাধ্যমে ছুটি বাতিলের বিষয়টি জানানো হয়েছে। এদের মধ্যে রয়েছেন অধ্যাপক, সরকারি অধ্যাপক, সহযোগী অধ্যাপকসহ মেডিসিন বিভাগের সব চিকিৎসক। তবে আগস্টের ৮ তারিখের মধ্যে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা যদি কমে যায়, তখন ছুটির বিষয়ে আবার চিন্তা-ভাবনা করা হবে।
এক প্রশ্নের জবাবে ঢামেক হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান বলেন, ইন্টার্ন চিকিৎসকরা আমাদের অধীনে না। তারা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অধীনে।
তবে, ঢামেক হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডাক্তার নাসির উদ্দিন বাংলানিউজকে বলেন, মেডিসিন বিভাগের সব ইন্টার্ন চিকিৎসকদের ঈদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।