দুর্নীতির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক বরখাস্ত

অপরাধ শিক্ষা বার্তা

দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগে লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার চর ফলকন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে বরখাস্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ তদন্তের প্রেক্ষিতে গত ৬ আগস্ট কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড স্কুল সভাপতিকে এ নির্দেশ দেয়।

কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের বিদ্যালয় পরিদর্শক স্বাক্ষরিত চিঠি থেকে বিষয়টি জানা যায়।চিঠিতে বলা হয়, বেআইনিভাবে বেতন ভাতাদি গ্রহণের অভিযোগ তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে। যে কারণে বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষককে ফৌজদারী মামলায় গ্রেফতার হওয়ার তারিখ থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

এর আগে গত বছরের ১১ নভেম্বর স্কুল অ্যাডহক কমিটির সদস্য মো. মোস্তাফিজুর রহমান কর্তৃক স্কুল প্রধান শিক্ষককের বিরুদ্ধে বেআইনিভাবে বেতন ভাতাদি গ্রহণ, স্কুল ছাত্রছাত্রীদের থেকে অতিরিক্ত ফি আদায়, ব্যক্তিগত মামলার খরচ স্কুল থেকে গ্রহণ ও স্কুলে অনুপস্থিত থেকে উপস্থিত হাজিরা প্রদানে অনিয়ম ও বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগ দাখিল করে কুমিল্লা মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডে।

স্কুল অ্যাডহক কমিটির সভাপতি, ফলকন ইউপি চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ বলেন, চর ফলকন উচ্চ বিদ্যালয়ের বর্তমানে কোন কমিটি নেই। তিনি অ্যাডহক কমিটির সভাপতি ছিলেন। গত ১৭ আগস্ট কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে। তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাও মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার সাথে আলোচনা করে প্রধান শিক্ষকের বরখাস্তের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.ইমতিয়াজ হোসেন বলেন, চর ফলকন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককের বরখাস্তের বিষয়টি শিক্ষাবোর্ড স্কুল সভাপতিকে নির্দেশ দিয়েছে। তবে বর্তমানে স্কুলে কোন কমিটি নেই। তাই বিষয়টি নিয়ে মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার সাথে আলাপ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্কুল প্রধান শিক্ষক আবু জাকের বলেন, আমি মিথ্যা মামলায় জেলে ছিলাশ। তখন স্কুল কমিটি ছিল না। পরে স্কুল কমিটি হলেও আমাকে বরখাস্ত করা হয়নি। আমাকে বরখাস্তের বিষয়টি সম্পূর্ণ স্কুলের ব্যাপার। এছাড়াও জেলে থাকা অবস্থায় স্কুল থেকে আমি কোন ধরনের বেতন-ভাতাদি গ্রহণ করেননি। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।