টস প্রথা তুলে দিলো পাকিস্তান!

খেলা বার্তা

ক্রিকেটের ঐতিহ্যবাহী টস প্রথা কি বিলুপ্ত হবে? এ নিয়ে কথা কিন্তু অনেক দিন ধরেই হচ্ছে। স্বাগতিক দলগুলো সবসময়ই এই টসের সুবিধা নেয়, নিজেদের মতো করে উইকেট বানায়। তাই বিশেষ করে টেস্ট ক্রিকেটে টস তুলে দেয়ার পক্ষে বিপক্ষে কথা চলছে অনেক দিন ধরেই।

আইসিসি অবশ্য এই টস তুলে দেয়ার বিষয়ে বড় কোনো সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি। তবে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) সাহসটা করেই ফেললো। ঘরোয়া ক্রিকেটে বলতে গেলে টস প্রথা বিলুপ্তির মতো এক সিদ্ধান্ত নিলো তারা।

পাকিস্তানের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট কায়েদ-ই-আজম ট্রফিতে সামনের মৌসুম থেকে শর্তসাপেক্ষে এই টস প্রথা তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, যাতে করে ঘরের দল (স্বাগতিকরা) টস আর উইকেট থেকে বাড়তি সুবিধা নিতে না পারে।

পাকিস্তানের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে মূলত পেস সহায়ক উইকেট তৈরি করা হয়, ফলে যে দল টসে জেতে তারাই প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয়। যেহেতু স্বাগতিক দল টস করে, তাদের পক্ষেই আসে বেশিরভাগ সিদ্ধান্ত।

তাই এখন থেকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, খেলতে আসা দলগুলোকে প্রথমে বল করার সুযোগ দেওয়া হবে। তারা সেটা না চাইলে তখন টস করা হবে। অর্থাৎ টসটা হবে যদি প্রয়োজন হয়, নচেৎ নয়।

পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খানের মাথায় এই পরিকল্পনা আসে এবং তিনি দ্রুত এটি চালু করার নির্দেশ দেন। ওয়াসিম খান মনে করেন, গত কয়েকটি মৌসুম ধরে ঘরোয়া দলগুলো একপেশে ভাবে জিতে যাচ্ছিল। এই সিদ্ধান্তের ফলে প্রতিযোগিতা আরও জমজমাট হবে। এছাড়াও নতুন ভাবে পিচ তৈরি করা হবে, যাতে সব দল এই পিচ থেকে সুবিধা পেতে পারে।