বিদায়ের আগে শোভনের শেষ কথা

রাজনীতি বার্তা শিক্ষা বার্তা

অবশেষে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী পদত্যাগ করেছেন। নতুন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হয়েছেন আল নাহিয়ান খান জয় এবং সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন লেখক ভট্টাচার্য।

গতকাল ১৪ সেপ্টেম্বর শনিবার প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন শোভন ও রাব্বানী। পরে সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে আল নাহিয়ানকে মনোনীত করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া লেখক ভট্টাচার্যকে সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করা হয়।

এদিকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বিতর্কিত সদ্য সাবেক সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের সামনে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়ের নামে স্লোগান দিতে দেখা গেছে নেতাকর্মীদের।

এ সময় সবাইকে উদ্দেশ্য করে শোভন বললেন, ‘ভালো থেকো।’ এরপর বিদায় নিয়ে চলে যান। শনিবার দিবাগত রাত একটার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসির) ডাচে এ ঘটনা ঘটে।গতকাল রাতে ঢাকা মেডিকেলের দিক থেকে আলাদা মোটর সাইকেলে করে আসেন সদ্য পদ হারানো রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সদ্য ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব পাওয়া আল নাহিয়ান খান জয়। এ সময় টিএসসির ডাচে নেতাকর্মীদের ভিড় দেখে শোভন এবং জয় সেখানে থামেন।

এ সময় শোভনের সামনেই নেতাকর্মীরা জয় ভাইয়ের আগমন, শুভেচ্ছা স্বাগতম… বলে স্লোগান দিতে থাকে। এক পর্যায়ে উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশে শোভন বলেন, ‘শোনো, অতিরঞ্জিত হয় এমন কিছু করবা না। যেটা আমাদেরকে কষ্ট দেয়, শেখ হাসিনাকে কষ্ট দেয়। ঠিক আছে, সবাই ভালো থাকবে।’ তবে নতুন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জয় কোনো বক্তব্য দেননি।