ক্ষমা চাইলেন ‘অনুতপ্ত’ রাব্বানী,অতঃপর…

রাজনীতি বার্তা শিক্ষা বার্তা

অতীতের ভুলত্রুটির জন্য আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন ছাত্রলীগের সদ্য পদত্যাগী সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

চাঁদাবাজির অভিযোগে পদত্যাগ করা রাব্বানী সোমবার সকালে তার ভ্যারিফাইড ফেইসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে দলীয় প্রধানের কাছে ক্ষমা চেয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন।সম্প্রতি কয়েকটি ঘটনায় চাঁদাবাজির অভিযোগ ওঠার প্রেক্ষাপটে শেখ হাসিনা ক্ষুব্ধ হলে ক্ষমতাসীন দলের ভাতৃপ্রতীম সংগঠনটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের সঙ্গে রাব্বানীও পদত্যাগ করেন।

ছাত্রলীগ নিয়ে নানা আলোচনার মধ্যে ফেইসবুকে শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে লেখা স্ট্যাটাসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাধারণ সম্পাদক রাব্বানী লিখেছেন, “মমতাময়ী নেত্রী, আপনার মনে কষ্ট দিয়েছি, আমি অনুতপ্ত, ক্ষমাপ্রার্থী। প্রিয় অগ্রজ ও অনুজ, আপনাদের প্রত্যাশা-প্রাপ্তির পুরো মেলবন্ধন ঘটাতে পারিনি বলে আপনাদের কাছেও ক্ষমাপ্রার্থী।

“প্রাণপ্রিয় আপা, আপনি আদর্শিক পিতা বঙ্গবন্ধু মুজিবের সুযোগ্য তনয়া, ১৮ কোটি মানুষের আশার বাতিঘর। আপনার দিগন্ত বিস্তৃত স্নেহের আঁচল, এক কোণে যেন ঠাঁই পাই। আপনার ক্ষমা এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে বাকিটা জীবন চলতে চাই।”রাব্বানীকে ছাত্রলীগের নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার পর তার ডাকসুর জিএস পদে থাকা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর মনে করছেন, যে কারণে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ খুইয়েছেন রাব্বানী, সেই কারণে ছাত্র সংসদের জিএস পদে থাকার যোগ্যতাও হারিয়েছেন তিনি
বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অনেকে বলছেন, রাব্বানী যেহেতু ছাত্রলীগের মনোনয়নেই ডাকসুর জিএস নির্বাচিত হয়েছেন এবং সেই ছাত্রলীগ থেকেই বিভিন্ন ‘অপকর্মের’ কারণে পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছেন। তাই ডাকসুর জিএস থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়েছেন তিনি।

ফেইসবুক স্ট্যাটাসে রাব্বানী আরও লিখেছেন, “মানুষ মাত্রই ভুল হয়। আমিও ভুলত্রুটির উর্ধ্বে নই। তবে বুকে হাত দিয়ে বলতে পারি, স্বেচ্ছায়-স্বজ্ঞানে আবেগ-ভালোবাসার এই প্রাণের সংগঠনের নীতি-আদর্শ পরিপন্থী ‘গর্হিত কোন অপরাধ’ করিনি। আনীত অভিযোগের কতটা ষড়যন্ত্রমূলক আর অতিরঞ্জিত, সময় ঠিক বলে দেবে।”রাব্বানী স্ট্যাটাস দেওয়ার তিন ঘণ্টার মধ্যে তার প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করে তিন হাজারের বেশি মন্তব্য এসেছে।রাব্বানীর ভাই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীতে কর্মরত গোলাম রুহানী লিখেছেন, “ভুল শুধরে তোমরা ফিরে আসবে স্বমহিমায় ইনশাআল্লাহ।”

নরসিংদী-৩ আসনের সংসদ সদস্য সিরাজুল ইসলাম মোল্লা লিখেছেন, “শুভ কামনা ও দোয়া রইল.. ব্যর্থতা থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর নামই জীবন। তুমি পারবে বলেই আমরা ও আমাদের সকলের বিশ্বাস। কিছু হয়নি। এগিয়ে যাও সততা ও নিষ্ঠাকে সামনে রেখে।”

সূত্রঃ বিডি নিউজ২৪।